লেখিকা ফেরদৌসী খানম রীনা

জন্মস্থান: বাবুগঞ্জ, বরিশাল
জন্ম তারিখ: ১লাা জানুয়ারি

লেখক জীবন

লেখিকা ফেরদৌসী খানম রীনা বরিশাল জেলার বাবুগঞ্জে ১লাা জানুয়ারিতে জন্ম গ্রহন করেন। পিতা হারুনুর রশীদ এবং মা ফিরোজা বেগমের চার সন্তানের মধ্যে ২য় সন্তান তিনি। পেশায় তিনি কদমতলা পূর্ব বাসাবো স্কুল এন্ড কলেজ, ঢাকা এর একজন স্বনামধন্য শিক্ষিকা। স্কুল জীবন থেকেই লেখালেখিতে অভ্যাস্ত ছিলেন তিনি। বিভিন্ন প্রতিকূলতা ও ব্যস্ততার কারণে নিজের লেখার বই প্রকাশ করতে বেশ বিলম্ব হয় তার। ২০১৬ থেকেই তিনি নিয়মিত অনলাইনে লেখালেখি করে আসছেন।

তার লেখা বেশ কয়েকটি জনপ্রিয় দৈনিক পত্রিকা, অনলাইন পত্রিকা, ম্যাগাজিন ও যৌথ গ্রন্থে প্রকাশিত হয়েছে।এবং তার লেখা কবিতা দেশে-বিদেশের বিভিন্ন জনপ্রিয় আবৃত্তি শিল্পী আবৃত্তিও করেছেন। আবৃত্তিগুলো ইউটিউবে ও ফেসবুকে বেয় জনপ্রিয়তা হয়ে উঠেছে। অনলাইনে বিভিন্ন গ্রুপ থেকে কবিতা প্রতিযোগিতায় ১৫০টি সম্মাননা সনদ পেয়েছেন তিনি। অনলাইন লেখালেখিসহ অনলাইনের বিভিন্ন গ্রুপে সাহিত্য সংগঠনে দায়িত্বও পালন করে যাচ্ছেন। প্রথমবারের মত তার পাঁচ শতাধিকেরও অধিক কবিতার মধ্য থেকে ১০০ কবিতা নিয়ে ২০১৯ বইমেলায় রঙধনুর রঙে নামক একক কাব্য গ্রন্থ প্রকাশিত হয়েছে। গ্রন্থটিতে রয়েছে দেশ, স্বাধীনতা, ভাষা ও নানা বিষয়ের উপর রচিত কবিতার একটি সংকলন। গ্রন্থটি পাঠককে দারুণভাবে আলোড়িত করবে। পরবর্তীতে তার আরো চমৎকার কিছু কবিতা সম্বলিত কাব্যগ্রন্থ প্রকাশ করার ইচ্ছা রয়েছে। তিনি সকলের দোয়া প্রার্থী।

লেখকের লেখাসহ প্রকাশিত কিছু যৌথ কাব্যগ্রন্থ, ম্যাগাজিন, পত্রিকা ও অনলাইন পত্রিকার নাম দেয়া নিম্নে দেয়া হলো:
যৌথ কাব্যগ্রন্থ সমূহ:
১।অনিরুদ্ধ ফোয়ারা ২।অর্নিবাণ ৩।মানচিত্র ৪।ভালোবাসার এপিঠ ওপিঠ ৫।নিভৃতচারী ৬।চন্দ্রদীপ ৭।একটি তর্জনীর গল্প ৮।ঝড়া ফুলের গন্ধ ৯।ছোট দের মিষ্টি ছড়া ১০।শতফুল ১১।অর্ধবিন্দু ১২।বিজয়ের উল্লাস ১৩।কাব্যের মিতলি ১৪।হৃদয়ে কাব্য ভেলা ১৫।ঝিঙেফুল ১৬।একুশ আমার অহংকার ১৭।কাব্য দীপ্তি ১৮।ছড়ার ফ্রেম ১৯।নজরুলের বহুমাত্রিক মূল্যায়ন ২০।নারীদের স্বপ্নের তরী ২২।শেষ বিকেলের কবিতা ২৩।বায়ান্ন থেকে একাত্তর। ২৪। মা মাটির ঘ্রাণ ২৫।নিভৃতচারী ২৬।পয়মন্ত প্রথমা
ম্যাগাজিনসমূহ:
১।জলতরঙ্গ ২।প্রিয় বাংলা ৩।সাহিত্য ধারা ৪। স্বাধীন বাংলা ৫।কিশোর পত্র ৬।সূর্যোদয় সময় ৭।কবিতাওয়ালা ৮।সুর বাংলা ৯।জননী ১০।সময়ের কলম ১১।মাসিক ফুলের হাসি ১২।লেখালয় ১৩।প্রণয় ১৪।চেতনায় ২১ ১৫।প্রতিভা ম্যাগাজিন ১৬।ফুলকুঁড়ি ১৭।নতুন তারা
পত্রিকাসমূহ:
১।ভোরের কাগজ ২।দৈনিক সংগ্রাম ৩।দৈনিক আলোকিত সকাল ৪।কালের কণ্ঠ ৫।ভোরের বার্তা ৬।আদমজী নগর ৭।বিজয় ৮।।আলোর মনি ৯।।বুনোহাঁস ১০।।জালালাবাদ ১১। যুগের আলো ১২। স্লোগান ১৩।চরকা ১৪।হাওয়া ১৫।যুগের বার্তা ১৬।কাব্য কণ্ঠ ১৭।চর্চা ১৮।শব্দ ১৯।জাগ্রত জনতা ১৬।কাজির বাজার ২০।কুমিল্লার কথা ২১।চাঁপাই দর্পন ২২।মাসিক কৈশোরিকা ২৩।কড়চা ২৪।ভোরের মেঘ ২৫।সোনালী সূর্য সাহিত্য পত্রিকা ২৬।বায়ান্নোর আলো
অনলাইন পত্রিকাসমূহ:
১।শব্দের ভেলা( ভারত) ২।ঠোঁটকাটা( ভারত) ৩।দৈনিক চলনবিলের কথা ৪।তানজিলা টিভি ৫।সাহিত্য সঞ্চার ৬।বঙ্গ কলম সাহিত্য পরিষদ ৭।মাসিক বজ্রধ্বনি ৮।সময়ের আলো ৯।সকালের আলো ১০।কলম সৈনিক

পরিশেষে লেখিকার বক্তব্য:

আসসালামু আলাইকুম,
আমি ফেরদৌসী খানম রীনা, অচিনপুর এক্সপ্রেস এ অনলাইন সাহিত্য গ্রুপের মাধ্যমে প্রথম থেকেই সংযুক্ত রয়েছি। অনলাইন সাহিত্য চর্চার মধ্য দিয়েই মূলত লেখালেখির অনুপ্রেরণা ও উদ্বুদ্ধ হওয়া। অচিনপুর এক্সপ্রেসের প্রতি আমি কৃতজ্ঞ। লেখক পোর্টফোলিও পেজ কার্যক্রমটি এগিয়ে যাক, এর মাধ্যমে লেখকদের একটি অনলাইন প্লাটফর্ম তৈরী হোক। অচিনপুর এক্সপ্রেসের সাফল্য কামনা করছি। অচিনপুর এক্সপ্রেস এগিয়ে যাক তার কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্যে, দোয়া ও শুভকামনা রইলো।

পাঠক হৃদয়ে নিজের অবস্থান চিরস্থায়ী করতে এবং সাহিত্যের মরুতে জলের সন্ধানে আমি আজীবন জাগ্রত রবো। এই প্রত্যাশায় সকলের মঙ্গল কামনা করছি।

ফেরদৌসী খানম রীনা
০৬-০২-২০২১

11 thoughts on “লেখিকা ফেরদৌসী খানম রীনা

  1. I wanted to create you a very little observation to finally thank you once again for all the stunning tips you have featured above. It’s shockingly open-handed of you giving publicly all that some people could possibly have offered for an e-book in order to make some cash on their own, notably given that you could possibly have tried it in the event you wanted. These good tips in addition served as the good way to know that other people have a similar passion just like mine to figure out good deal more in respect of this issue. I am certain there are several more fun periods up front for individuals who start reading your blog post.

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Please visit...